হারাম উর্পাজনরে হাদয়িা গ্রহণ করা


[লিখেছেন jibaitunnoor, November 17, 2020 05:07 am ]

প্রশ্ন:

কোন মহিলার উপার্জনের মাধ্যম হল, সুদ বা অন্য কোন হারাম পন্থা। এমন মহিলা যদি তার বোনের বাড়ীতে কোন হাদিয়া বা তার টাকায় কোন কিছু ক্রয় করে দেয় তা গ্রহণ করা বা খাওয়া জায়েয হবে কী?

উত্তর:

প্রশ্নে বর্ণিত অবস্থায় যদি হাদিয়া দান কারিনী উক্ত মহিলার র্পূণ বা অধিকাংশ মালই হারাম উপায়ে উপার্জিত হয়, তাহলে তার দেয়া হাদিয়া বা ক্রয়কৃত বস্তু গ্রহণ করা ও খাওয়া জায়েয হবে না। তবে যদি সে স্পষ্ট করে বলে দেয় যে ইহা আমি হালাল মাল থেকে দিয়েছি এবং তার কথার উপর আস্থা জন্মে তাহলে তা গ্রহণ করা জায়েয হবে । 

আর যদি উক্ত মহিলার র্পূণ বা অধিকাংশ মালই হালাল উপায়ে উপার্জিত শুধু কিছু মাল হারাম পন্থায় উপার্জিত হয়, তাহলে তার দেয়া  হাদিয়া ও ক্রয়কৃত বস্তু গ্রহণ করা ও খাওয়া জায়েয হবে। আর যদি সে স্পষ্ট করে বলে দেয় যে ইহা আমি হারাম মাল থেকে দিয়েছি তাহলে তা কোন অবস্থাতেই গ্রহণ করা জায়েয হবে না।

সূত্র:

সূরা বাকারাহ: ২৭৫, হাকেম: ১/৫৪৫, হাদীস: ১৪৩০, কাযীখান: ৩/৩০১, আল হিন্দিয়্যাহ : ৫/৩৪২, খুলাসাতুল ফাতাওয়া: ৪/৩৪৮, রদ্দুল মুহতার: ৯/৫৫৩, আযীযুল ফাতাওয়া: ৭১৪।
فى خلاصة الفناوى ৪.৩৪৮: رجل أهدى إلى إنسان وأضافه كان غالب مال المهدى حراما لا ينبغى أن يقبل ولا يأكل من طعامه حتى يخبر أن ذلك المال حلال ولو كان غالب ماله حلالا لا بأس به ما لم يبين أنه حرام –