শিক্ষা কার্যক্রম

মক্তব বিভাগ : এ বিভাগে মনোরম পরিবেশে বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে মেধানুযায়ী শিশুদেরকে মাত্র ২/৩ বছরের কোর্সে তাজবীদসহ পূর্ণ কুরআন শরীফের পাঠদান, প্রাথমিক মাসায়িলের বাস্তব প্রশিক্ষণ প্রদান এবং প্রাইমারী পর্যায়ের বাংলা, অংক ও ইংরেজী অত্যন্ত যতেœর সাথে শিক্ষা দেয়া হয়।
হিফজ বিভাগ : এ বিভাগে ৩/৪ বছরে শিশুদেরকে সম্পূর্ণ কুরআন শরীফ সহীহ ও শুদ্ধভাবে মুখস্থ এবং প্রয়োজনীয় মাসায়িল শিক্ষাদানের মাধ্যমে পূর্ণাঙ্গ হাফিজে কুরআন হিসেবে গড়ে তোলা হয়।
কিতাব বিভাগ : এটি জামিয়ার শিক্ষা ব্যবস্থায় সর্বাধিক সমৃদ্ধ, বৃহত্তর ও প্রধান বিভাগ। এ বিভাগেই তৈরি হয় জাতির কাণ্ডারী-আধ্যাত্মিক রাহবার। দ্বীনি শিক্ষার ক্রম মূল্যায়নের ভিত্তিতে কিতাব বিভাগটি মৌলিক পর্যায়ে পাঁচটি স্তরে বিভক্ত। ইবতিদাইয়্যাহ (প্রাথমিক) মুতাওয়াসসিতাহ (মাধ্যমিক) সানুবিয়্যাহ উলয়া (উচ্চমাধ্যমিক) ফজিলত (ডিগ্রি) ও তাকমীল (মাস্টার্স)। এ ৫টি স্তরে মোট ১০ বছর মেয়াদে পূর্ণ দ্বীনী শিক্ষার মাধ্যমে একজন শিক্ষার্থীকে যোগ্য আলেমরূপে গড়ে তোলা হয় ও সনদ প্রদান করা হয়। এ বিভাগের উত্তীর্ণ আলেমগণ ‘মাওলানা’, উপাধি লাভ করেন।
ইফতা বিভাগ : এটি জামিয়ার সর্বোচ্চ বিভাগ। যা তাকমীল ক্লাসের ফারেগ ছাত্রদের জন্য দুই বৎসর মেয়াদী তাখাসসুস ফিল ফিকহি ওয়াল ইফতা তথা উচ্চতর ইসলামী আইন গবেষণা কোর্স। এই বিশেষ প্রশিক্ষণ কোর্সের মাধ্যমে দাওরায়ে হাদীসের চূড়ান্ত পরীক্ষায় প্রথম বিভাগে উত্তীর্ণ আলেমদেরকে দুই বৎসরে যুগ সমস্যার সমাধানে সহীহ ফাতওয়ায়ে প্রদান করার যোগ্যতা সম্পন্ন করে “মুফতী” সনদ প্রদান করা হয়।

লিখেছেন jibaitunnoor